Published On: Sat, Jul 7th, 2012

এক ঘর থেকে মা সাপসহ ৩৩টি গোখরোর বাচ্চা উদ্ধার

কামরুজ্জামান সেলিম, চুয়াডাঙ্গা : দামুড়হুদার জয়রামপুর কলোনী পাড়ার  মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে স্বপনের বাড়ির একটি পরিত্যাক্ত মাটির ঘর ভেঙ্গে দেওয়ালের নীচে খুড়ে ১টি বড় মা সাপসহ ৩৩টি গোখরো সাপের বাচ্চা ধরেছে দু সাপুড়ে। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে সাপগুলো ধরেন জীবননগর উপজেলার  বাঁকার নওদা পাড়ার মৃত কালু মন্ডলের ছেলে স্বর্পরাজ উকিল উদ্দিন ও মৃত মাতব্বর মালিথার ছেলে স্বর্পরাজ আত্তাপ আলী। বাড়ির মালিক স্বপন জানান প্রায়  আমার পিতা ৪০ বছর পূর্বে বসবাসের জন্য মাটির দেওয়াল দিয়ে একটি আটচালা ঘর তৈরী করেন। বছর খানেক আগে আলাদাভাবে আর একটি পাঁকাঘর  নির্মাণ করায় উক্ত  মাটির তৈরী বসতঘরটি পরিত্যক্ত অবস্থায় কিছু খড়িকাঠ রাখা ছিল। গত ৪ জুলাই বিকেলে ঐ মাটির ঘর থেকে ১টি সাপের বাচ্চা বেরিয়ে আসা দেখতে পেয়ে ঘরের দেওয়ালের কিছু অংশ ঘুড়ে ৮টি সাপের বাচ্চা মারা হয় ।
পরদিন সকালে সাপুড়ে এনে ঘরের পুরো দেওয়াল ভেঙ্গে ফেলারপর দেওয়ালের মধ্য থেকে ৩৬টি ডিমের খোসা, ৩৩টি গোখরো সাপের বাচ্চাসহ ১ টি বড় মা সাপ ধরা হয়। ধরা পড়া সাপের বাচ্চাগুলো মেরে ফেলে আগুনে পুড়িয়ে ফেললেও প্রায় সাড়ে পাঁচফুট লম্বা মা সাপটি সাপুড়েরা নিয়ে যায়। এ বিষয়ে দু সাপুড়ে  বলেন বছরের অন্যান্য সময়ে সাপ বাড়ির আশপাশের ঝোড়-জঙ্গলের গর্তের মধ্যে থাকলেও ডিম পাড়ার সময় হলে ওরা মাটির ঘর খোঁজে। ফালগুন-চৈত্র মাসে ডিম পাড়ে এবং আষাঢ়- শ্রাবন এ দুমাসে ডিম থেকে বাচ্চা বের হয়। একটা মা সাপ ৪০ থেকে ৪৫টি পর্যন্ত ডিম দেয়।  যাদের মাটির আছে তারাসহ প্রতিবেশীদের ও  ফালগুন-চৈত্র ও আষাঢ়- শ্রাবন এ চারমাস  সাবধানে চলাফেরা করতে হবে । সাপ ধরা দেথতে আসা উৎসুক জনতার জনৈক্য বৃদ্ধা জানালেন কয়েকদিন আগেও একই পাড়ার আজিম উদ্দিনের ছেলে মতিনের বাড়ির মাটির ঘর থেকে ৪২ টি  এবং বাদশার ছেলে আবুর বাড়ি থেকে  ৪৪  টি সাপের বাচ্চা মারা হয়। এ দিকে একই পাড়ায় এতোগুলো সাপ দেখে সাপ আতংকে ভুগছে গ্রামের অন্যান্য বাসিন্দাগন।

Leave a comment

XHTML: You can use these html tags: <a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <strike> <strong>

ঢাকা সময়

অনলাইন জরিপঃ

'সরকার প্রশাসন আর দুদককে নগ্নভাবে ব্যবহার করছে' বললেন মির্জা ফখরুল। আপনি কি তাই মনে করেন?

View Results

Loading ... Loading ...

সম্পাদক ও প্রকাশকঃ আহমাদ আলী
বার্তা প্রধানঃ রিদওয়ান আহমেদ
চীফ রিপোর্টারঃ মহিউদ্দিন আহমেদ
৮নং ডি.আই.টি এভিনিউ, মঞ্জুরী ভবন (৭ম তলা), মতিঝিল বা/এ, ঢাকা-১০০০
মুঠোফোন : ০১৭১৭-১৮১৬৭২, ০১৭১৫-০৯৩৮৬৫, ফোন-ফ্যাক্স : ০২-৯৫৫৪১৭৩
ই-মেইল : ridwanahmed92@ymail.com